• পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
  • সোমবার, ১৪ জুন ২০২১, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮
  • ||
  • আর্কাইভ

শিশু কল্যাণ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ক্ষতির পরিমাণ নির্ধারণে জেলা প্রশাসকের কমিটি গঠন

প্রকাশ:  ০৭ জুন ২০২১, ১৩:০২
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

চাঁদপর শিশু কল্যাণ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তহবিলে অর্থ থাকার পরও ২০১৮ সাল থেকে ভবন নির্মাণের কাজ বন্ধ রাখার কারণে জেলা প্রথমিক শিক্ষা অফিসার সাহাবউদ্দিনের দায়িত্ব অবহেলায় বিদ্যালয়ের ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নির্ধারণে চাঁদপুর জেলা প্রশাসক কমিটি গঠন করেছেন।
বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও চাঁদপুর জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ গত ৫ মে ২০২১ খ্রিঃ তারিখে চার সদস্য বিশিষ্ট এই কমিটি গঠন করেন। কমিটির আহ্বায়ক হচ্ছেন : চাঁদপুর গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ রকিবুর রহমান এবং সদস্য সচিব সহকারী কমিশনার (শিক্ষা শাখা) ও জেলা প্রশাসকের প্রতিনিধি আবিদা সিফাত। সদস্যরা হচ্ছেন : চাঁদপুর শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের উপ-সহকারী প্রকোশলী স্বপন কুমার সাহা এবং  চাঁদপুর গণপূর্ত বিভাগের উপ-সহকারী প্রকোশলী মোঃ আলী নূর।
উক্ত কমিটি গত ২৫ মে সকাল ১১টায় চাঁদপুর শিশু কল্যাণ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নির্মাণাধীন ভবন পরিদর্শন করেন। পর্যাপ্ত অর্থ থাকার পরও গত তিন বছর থেকে ভবনের নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখার কারণে মাদকসেবী ও দুর্বৃত্তরা নির্মাণাধীন ভবনের গ্রীল, টয়লেট, দেয়াল, গভীর নলকূপসহ অনেক অবকাঠামো ভেঙ্গে ফেলে এবং চুরি করে নিয়ে যায়। এতে চাঁদপুর শিশু কল্যাণ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নির্মাণাধীন ভবনের লক্ষ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। কমিটি সরেজমিন তদন্তের সময় ক্ষয়ক্ষতি হওয়া অবকাঠামো সমূহ লিপিবদ্ধ করেন এবং এর স্থির চিত্র সংগ্রহ করেন।
চাঁদপুর জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার সাহাব উদ্দিন চাঁদপুর শিশু কল্যাণ প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব ও বিদ্যালয়ের ভবন নির্মাণ প্রকল্প কমিটির আহ্বায়কের দায়িত্বে থাকা সত্ত্বেও ২০১৮ সালে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে একবারও শিশু কল্যাণ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মিটিং করেননি এবং বিদ্যালয়টি একদিনও পরিদর্শন করেননি। অথচ, শিশু কল্যাণ ট্রাস্টের নীতিমালা অনুযায়ী প্রতিমাসে একবার মিটিং করার নিয়ম রয়েছে। বিদ্যালয় ভবন নির্মাণ তহবিলে টাকা থাকার পরও তিনি গত তিন বছরে নির্মাণাধীন ভবনের কোনো কাজ করেননি।
বিদ্যালয়ের ক’জন অভিভাবক তদন্ত কমিটির কাছে এসে বলেন, বিগত কয়েক বছর থেকে নির্মাণাধীন ভবনের কাজ বন্ধ রাখার কারণে ভবনের গুণগত মান নষ্ট হয়ে গেছে। এছাড়াও মাদকসেবী এবং দুর্বৃত্তরা সুবিধাবঞ্চিত, শ্রমজীবী শিশুদের এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ভবনের গ্রিল, টয়লেট, দেয়াল, গভীর নলকূপসহ অনেক অবকাঠামো ভেঙ্গে এবং চুরি করে নিয়ে গেছে। এতে বিদ্যালয়ের কয়েক লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। ডিপিইও সাহাব উদ্দিন গরিবের এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে পরিকল্পিত ভাবে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে গেছেন।
এ সময় তারা চাঁদপুর জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার সাহাব উদ্দিনের দায়িত্ব অবহেলা, আর্থিক অনিয়ম, দুর্নীতির বিরুদ্ধে জরুরি ভিত্তিতে ব্যবস্থা গ্রহণ করে চাঁদপুর শিশু কল্যাণ প্রাথমিক বিদ্যালয়কে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্ত থেকে উদ্ধারের আহ্বান জানান।
অভিভাবকগণ আরো জানান, হতদরিদ্র, সুবিধাবঞ্চিত, শ্রমজীবী শিশুদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চাঁদপুর শিশু কল্যাণ প্রাথমিক বিদ্যালয়কে রক্ষা করার দাবিতে আমরা গত ১০ মার্চ ২০২১ খ্রিঃ তারিখে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন করে জেলা প্রশাসক মহোদয়ের কাছে স্মারকলিপি দিয়েছি। জেলা প্রশাসক মহোদয় তখন আমাদেরকে এই ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।
উল্লেখ্য, বারবার তাগিদ দেয়া সত্ত্বেও চাঁদপুর শিশু কল্যাণ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভবন নির্মাণ কাজের অর্থের হিসাব না দেয়া এবং অসত্য তথ্য প্রদানসহ অনৈতিক কাজের অভিযোগে গত ২৪ মে ২০২১ খ্রিঃ তারিখে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার সাহাব উদ্দিনকে চাঁদপুর জেলা প্রশাসক শোকজ করেছেন।