• পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
  • শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২ আশ্বিন ১৪২৮
  • ||
  • আর্কাইভ

জাতীয় তথ্যপ্রযুক্তি পুরস্কার অর্জন করলো অরেঞ্জ বিজনেস ডেভেলপমেন্ট লিমিটেড

প্রকাশ:  ২৮ জুন ২০২১, ০৮:৪৭ | আপডেট : ২৮ জুন ২০২১, ১৪:০৪
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

ইউনিয়ন পরিষদ হতে প্রদত্ত নাগরিক সেবাসমূহ জনগণের হাতের মুঠোয় পৌঁছে দিতে ইউনিয়ন পরিষদ সেবা (ইউপিসেবা) সফটওয়্যার তৈরির স্বীকৃতিস্বরূপ ডিজিটাল গভর্নমেন্ট বিভাগে দ্বিতীয় স্থান অধিকারী হিসাবে জাতীয় তথ্যপ্রযুক্তি পুরস্কার -২০২০ অর্জন করলো অরেঞ্জ বিজনেস ডেভেলপমেন্ট লিমিটেড।

দেশের বিভিন্ন খাতের সেরা প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোকে স্বীকৃতি দিতে বৃহস্পতিবার (২৪ জুন) বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) এর কার্যালয়ে জাতীয় তথ্যপ্রযুক্তি পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

জাতীয় তথ্যপ্রযুক্তি পুরস্কার প্রাপ্তিতে অরেঞ্জ বিজনেস ডেভেলপমেন্ট লিমিটেড-এর পরিচালক এবং প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আল-আশরাফুল কবির জুয়েল বলেন, বেসিস আমাদের এই প্রকল্পকে পুরস্কৃত করায় আমরা আনন্দিত এবং গর্বিত। বাংলাদেশ সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের সূত্রধরে ইউনিয়ন পরিষদ হতে প্রদত্ত নাগরিক সেবাসমূহ জনগণের হাতের মুঠোয় পৌঁছে দিতে আমরা ইউনিয়ন পরিষদ সেবা (ইউপিসেবা) সফটওয়্যার তৈরি করেছি। আমরা বিশ্বাস করি ইউনিয়ন পরিষদ সেবা (ইউপিসেবা) সফটওয়্যার ব্যবহার করে পরিবর্তন হবে 'দূরত্বের' সংজ্ঞা, নিশ্চিত হবে স্বচ্ছতা এবং পৌঁছে যাবে সেবা জনগণের দোরগোড়ায়।

ইউনিয়ন পরিষদ সেবা (ইউপিসেবা) সফটওয়্যার ব্যবহার করে বিশ্বের যেকোনো স্থান থেকে অতি অল্প সময়ে নির্ভুলভাবে জাতীয় পরিচয়পত্র অথবা জন্ম সনদ দ্বারা তাদের কাঙ্ক্ষিত সেবার সনদ প্রাপ্তির জন্য অনলাইন থেকে আবেদন করতে পারবেন। পরবর্তীতে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বা দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উক্ত আবেদনটি তার জন্য নির্ধারিত অনলাইন ড্যাশবোর্ডের মাধ্যমে যাচাই করে চেয়ারম্যান মহোদয়ের ডিজিটাল সাক্ষরের মাধ্যমে সনদ ইস্যু করতে পারবেন।

স্থানীয় ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার থেকেও সনদের জন্য আবেদনের সুযোগ রয়েছে ইউপিসেবা সফটওয়্যারে। আবেদনকারী সনদ ইস্যুর সাথে সাথেই এসএমএস এলার্ট পাবেন এবং ইস্যুকৃত সনদ নাগরিক তার নিজস্ব প্রোফাইল থেকে যেকোনো সময় ডাউনলোড এবং প্রিন্ট করে ব্যবহার করতে পারেন। নাগরিকের নিজস্ব প্রোফাইল থাকায় সনদ হারানোর সম্ভাবনা শতভাগ ঝুঁকিমুক্ত। উক্ত ডিজিটাল সনদ সুরক্ষিত QR Code সম্বলিত যার মাধ্যমে সনদ ভেরিফিকেশন করা যায়। সুতরাং জাল সনদ তৈরি শতভাগ ঝুঁকিমুক্ত।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালে পাবলিক সেক্টর অ্যান্ড গভর্নমেন্ট অ্যান্ড সিটিজেন বিভাগে দ্বিতীয় স্থান অধিকারী হিসাবে জাতীয় তথ্যপ্রযুক্তি পুরস্কার অর্জন করেছিলো অরেঞ্জ বিজনেস ডেভেলপমেন্ট লিমিটেড

সর্বাধিক পঠিত