• পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
  • রোববার, ২৯ মে ২০২২, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
  • ||
  • আর্কাইভ

৭৮ বার করোনা ‘পজিটিভ’ হলেন এক বৃদ্ধ

প্রকাশ:  ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ১১:৫৭ | আপডেট : ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ১২:২০
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসের প্রকোপ ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে এক ব্যক্তি পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন ৭৮ বার। তার বয়স ৫৬ বছর। করোনায় আক্রান্ত হওয়ার কারণে ২০২০ সাল থেকে টানা ১৪ মাস আইসোলেশনে ছিলেন তুরস্কের নাগরিক মুজাফ্ফর কায়াসন।
তার মতো এত দীর্ঘসময় আর কাউকে করোনা আক্রান্ত হয়ে থাকতে হয়নি বলে জানিয়েছে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম। এই সময় মুজাফ্ফর হাসপাতাল ও বাড়িতে আইসোলেশনে কাটিয়েছেন।
লিউকোমিয়ায় আক্রান্ত মুজাফ্ফরের ২০২০ সালের নভেম্বরে প্রথম করোনা শনাক্ত হয়। তারপর কিছুদিন হাসপাতালে কাটান। রোগের তীব্রতা কিছুটা কমলে ফিরে যান বাড়িতে। সম্পূর্ণ সুস্থ হওয়ার অপেক্ষায় ইস্তানবুলের বাড়িতে আইসোলেশনে থাকেন তিনি। কিন্তু বিড়ম্বনার শুরুটা ছিল সেখানেই। এরপর একে একে কেটে গেছে মাস। কয়েক দিন পর পর করোনা পরীক্ষা করেছেন। প্রতিবার এসেছে ‘পজিটিভ’ রেজাল্ট।
সম্প্রতি বলা হচ্ছে, করোনা আক্রান্ত হওয়ার দুই সপ্তাহ পর থেকে আইসোলেশন ছাড়া যাবে। কিন্তু মুজাফ্ফর যখন আক্রান্ত হন, তখন এ নিয়ম ছিল না। ইতোমধ্যে দফায় দফায় ৯ মাস হাসপাতালে কাটিয়েছেন তিনি। পাঁচ মাস কাটিয়েছেন বাড়িতে। পরীক্ষা করিয়েছেন মোট ৭৮ বার।
পরিবার-পরিজন থেকে দূরে থেকে একা দিন যাপন করতে হচ্ছে উল্লেখ করে মুজাফ্ফর চিকিৎসকদের কাছে এ অবস্থা থেকে মুক্তির জন্য আবেদন জানিয়েছেন। চিকিৎসকরা বলছেন, লিউকোমিয়ার কারণে তার এ অবস্থা। মুজাফ্ফরের ইমিউনিটি সিস্টেম খুবই দুর্বল হয়ে গেছে। তাই তিনি পুনরায় সুস্থ হয়ে উঠতে পারছেন না।
বিলাপের সুরে মুজাফ্ফর বলেন, করোনা আমার সামাজিক জীবন ধ্বংস করে দিয়েছে। আমি প্রিয়জনদের কাছে যেতে পারছি না, ছুঁয়ে দেখতে পারছি না। শরীরের দুরবস্থার কারণে আমি ভ্যাকসিনও গ্রহণ করতে পারিনি। ঢাকা পোস্ট।

 

সর্বাধিক পঠিত