• পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
  • রোববার, ২৯ মে ২০২২, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
  • ||
  • আর্কাইভ

সহ¯্রাধিক রোজাদার নিয়ে চাঁদপুর দীনিয়া মাদ্রাসার ইফতার মাহফিলে মেয়র জুয়েল

বদরের যুদ্ধ ছিল হক ও বাতিলের মধ্যে পার্থক্য রচনাকারী

প্রকাশ:  ২০ এপ্রিল ২০২২, ১১:০৪
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

 সহ¯্রাধিক রোজাদার নিয়ে চাঁদপুর দারুচ্ছুন্নাত দীনিয়া মাদ্রাসায় ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৯ এপ্রিল মঙ্গলবার চাঁদপুর পৌরসভার ১৩নং ওয়ার্ডস্থ রেলগেট মুন্সিবাড়ি সংলগ্ন ছারছীনা পীর সাহেবের খানেকায়ে ছালেহিয়া মোহেব্বীয়া কমপ্লেক্সে এ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে মাদ্রাসার ছাত্রদের পক্ষ থেকে ১০০তম কোরআন খতম করা হয় এবং ঐতিহাসিক বদর দিবস উপলক্ষে আসহাবে বদরের সাহাবীদের নামের তেলাওয়াত করা হয়।
এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র মোঃ জিল্লুর রহমান জুয়েল।  তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, সাহাবায়ে কেরামদের মর্তবা অনেক ঊর্ধ্বে। তাঁদের উপর স্বয়ং আল্লাহ ও তাঁর প্রিয় হাবিব সন্তুষ্ট। সাহাবাদের মর্যাদা যে কত বেশি তা মুখে প্রকাশ করা সম্ভব নয়। ইসলামের প্রথম বদরের যুদ্ধ। বদরের যুদ্ধ ছিল হক ও বাতিলের মধ্যে পার্থক্য রচনাকারী। ১৭ রমজান মুসলিম উম্মাহর কাছে ঐতিহাসিক বদর দিবস হিসেবে পরিচিতি।
তিনি আরো বলেন, আজ আমি দ্বীনি পরিবেশে ইফতার করতে পেরে আনন্দিত। সেইসাথে এলাকাবাসীর সঙ্গে একটি ভালো সময় কাটালাম। আমি নির্বাচনে যে সকল ওয়াদা করেছি সে কাজগুলো যেন বাকি সাড়ে তিন বছরের মধ্যে করতে পারি সেজন্যে দোয়া করবেন। আমার দায়িত্বকালের দেড় বছর পার হয়ে গেছে। আপনাদের দোয়া থাকলে আমি আমার ওয়াদাগুলো পূরণ করতে পারবো।
অনুষ্ঠানে দোয়া মোনাজাত করেন ছারছীনা দারুসসুন্নাত কামিল মাদ্রাসা সহকারী অধ্যাপক মাওলানা মোঃ রুহুল আমিন আফসারী। জেলার জমইয়াতে হিযবুল্লাহর সভাপতি ও দীনিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওঃ মোঃ সাইফুদ্দিন খন্দকারের সভাপ্রধানে বক্তব্য রাখেন খানকায়ে ছালেহিয়া মোহেব্বিয়া কমপ্লেক্সের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ হাসান আলী ভূঁইয়া, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মজিবুর রহমান ভূঁইয়া, চাঁদপুর শহর জমইয়াতের হিযবুল্লাহর সভাপতি মুফতি মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন খন্দকার, সংগঠনের সদর উপজেলা তালিম সম্পাদক মুফতি মোহাম্মদ মাইনুদ্দিন ঢালী, ইউনিয়নের সভাপতি মাওলানা আব্দুস সাত্তার প্রমুখ।
ইফতার মাহফিলে অংশ নেন কালেক্টরেট জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মোঃ মোশারফ হোসাইন, শাহী জামে মসজিদের খতিব মাওলানা আব্দুল্লাহ আল মামুন, জমইয়াতে হিযবুল্লাহর শহর শাখার সহ-সভাপতি শফিউল আলম, হাফেজ গোলাম হোসেন কাজী, মিজানুর রহমান খান, সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মোঃ আবদুর রহমান গাজী, যুগ্ম সম্পাদক মুফতি এসএম জাকিরসহ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও ছারছীনা দরবারের ভক্তবৃন্দ।
সভাপতির বক্তব্যে মাওলানা মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন খন্দকার বলেন, চাঁদপুর দারুচ্ছুন্নাত দীনিয়া মাদ্রাসা ২০০৮ সালে ভাড়া বাড়ির মাধ্যমে শুরু হয়। পরে আলহাজ্ব মোহাম্মদ তবিউল্লাহ খলিফা ছারছীনা হযরত পীর ছাহেব কেবলার খানকার জন্যে প্রায় ৫০ শতক জায়গা দান করেন। এ জমিতেই আজকে হাফিজিয়া মাদ্রাসা, দীনিয়া মাদ্রাসা (আলিম) ও একটি মসজিদ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। প্রতিদিন শতাধিক ছাত্র কোরআন তেলাওয়াত করছে। মাদ্রাসা ছাত্ররা এখানে থেকেই নিয়মিত লেখাপড়া করছে। আর ছাত্রদের খাবারে আঞ্জাম দিতে সমাজের সকল শ্রেণী-পেশার মানুষ সহযোগিতা করে আসছেন। তিনি সহযোগিতা আরো বেগবান করতে সকলের প্রতি আহ্বান জানান।

সর্বাধিক পঠিত