• পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
  • শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১
  • ||
  • আর্কাইভ

ফের নৌযান শ্রমিকদের কর্মবিরতি ঘোষণা

প্রকাশ:  ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০৯:৪৭
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

নতুন মজুরির কাঠামো ঘোষণার দাবিতে ফের কর্মবিরতিতে যাচ্ছেন নৌযান শ্রমিকরা। আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে যদি সরকার নতুন মজুরির কাঠামো ঘোষণা না করে, তবে ২৪ ফেব্রুয়ারি রাত ১১টা ৫৯ মিনিটের পর অর্থাৎ ২৫ তারিখ থেকে কর্মবিরতিতে যাবেন তারা। শনিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ নৌযান শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি মোঃ শাহআলম ভূঁইয়া।
শাহআলম ভূঁইয়া বলেন, সরকারের আশ্বাসের পরিপ্রেক্ষিতে আমরা গত ২৮ নভেম্বর কর্মবিরতি প্রত্যাহার করি। তখন বলা হয়েছিলো, এক মাসের মধ্যে নতুন মজুরি নির্ধারণ করে গেজেট জারি করা হবে। কিন্তু দুই মাস ২০ দিন পার হয়ে গেলেও সরকার মজুরি নির্ধারণে এখনও টালবাহানা করছে। আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে নতুন মজুরির ঘোষণা না এলে, ওইদিন রাত ১২টা থেকে সারাদেশে সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ থাকবে।
উল্লেখ্য, নৌযান শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি ২০ হাজার টাকা ও কর্মক্ষেত্রে মৃত্যুজনিত ক্ষতিপূরণ ১০ লাখ টাকা নির্ধারণসহ বিভিন্ন দাবিতে গত ২৭ নভেম্বর থেকে সারাদেশে কর্মবিরতিতে যান নৌযান শ্রমিকরা। এতে ভোগান্তিতে পড়েন লঞ্চের যাত্রীরা, বন্ধ হয়ে যায় নৌযানে পণ্য পরিবহনও। সংকট নিরসনে ২৮ নভেম্বর শ্রমভবনে মালিক, শ্রমিক ও সরকারের সমন্বয়ে ত্রি-পক্ষীয় সভা হয়। ওই সভায় সভাপতিত্ব করেন শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ান। সে সভায় এক হাজার টনের বেশি জাহাজের শ্রমিকদের নভেম্বর থেকে এক হাজার ২০০ টাকা ভাতা দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়। এছাড়াও এর চেয়ে বেশি পণ্যবাহী জাহাজের শ্রমিকদের এক হাজার ৫০০ টাকা মাসিক ভাতা দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়। পাশাপাশি বেতন কাঠামো গঠনের জন্য একটি কমিটি গঠন করা হয়। এক মাসের মধ্যে কমিটি শ্রমিকদের বেতন নির্ধারণ করে গেজেট প্রকাশ করবে এমন সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে শ্রমিকরা কর্মবিরতি প্রত্যাহার করেন। সূত্র : ঢাকা পোস্ট।

 

সর্বাধিক পঠিত