• পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
  • মঙ্গলবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১১ আশ্বিন ১৪৩০
  • ||
  • আর্কাইভ

উপকূলের দিকে ধেয়ে আসছে বিপর্যয়

প্রকাশ:  ১৩ জুন ২০২৩, ০৯:৪২
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

আরব সাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘বিপর্যয়’ অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নেওয়ার পর উচ্চ-পর্যায়ের বৈঠক ডেকেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। রোববার (১২ জুন) এ বৈঠকটি হয় বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি। এতে ঘূর্ণিঝড় পূর্ববর্তী এবং পরবর্তী প্রস্তুতি নিয়ে আলোচনা হবে।
আগামী বৃহস্পতিবার (১৫ জুন) ভারতের গুজরাটের কুচ এবং পাকিস্তানের করাচিতে ঘূর্ণিঝড়টি আঘাত হানবে বলে আবহাওয়ার পূর্বাভাসে জানিয়েছে ভারতীয় আবহাওয়া দপ্তর।
আগাম প্রস্তুতির অংশ হিসেবে গুজরাজের সৌরাষ্ট্র এবং কুচে ঘূর্ণিঝড় সতর্কতা জারি করা হয়েছে। ওই এলাকার উপকূলীয় অঞ্চলগুলোতে বুধবার পর্যন্ত সাগর উত্তাল থেকে থেকে অতি উত্তাল থাকতে পারে এবং বৃহস্পতিবার সাগর খুবই উত্তাল থাকবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর।
আবহাওয়ার সংস্থার খবর বলা হয়েছে, গুজরাটের কুচ, জামনগর, মোরবি, গীর সোমনাথ, পোর্বান্দর এবং দেবভূমি দর্কা বিভাগে ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে আগামী ১৩ থেকে ১৫ জুন অতি বৃষ্টি এবং ১৫০ কিলোমিটার গতিতে বাতাস বইতে পারে।
কুচ থেকে ইতোমধ্যে সাধারণ মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেওয়ার কাজ শুরু হয়েছে। গুজরাটের জনপ্রিয় তিথাল সমুদ্র সৈকতে পর্যটক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। এছাড়া মাছ ধরার নৌকাগুলোকে আপাতত সমুদ্রে না যাওয়ার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।
এদিকে ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে গতকাল মুম্বাই বিমানবন্দরে বিমান চলাচলে বিঘ্ন ঘটে। আবহাওয়া অনুকূল নেই এমন তথ্য জানিয়েছ বেশ কয়েকটি ফ্লাইট বিলম্ব অথবা বাতিল করে দেওয়া হয়েছে।
অপরদিকে পাকিস্তানের সিন্ধ প্রদেশ থেকে সাধারণ মানুষকে নিরাপদ দূরত্বে সরিয়ে নেওয়ার কাজ শুরু করেছে স্থানীয় প্রশাসন।
দেশটির আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, আগামী ১৩ জুন সিন্ধ এবং মাকরান উপকূলে বজ্রসহ বৃষ্টিপাত হবে। সূত্র : ঢাকা পোস্ট।

সর্বাধিক পঠিত