• পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
  • শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০
  • ||
  • আর্কাইভ

শাহ্তলীতে মেম্বারের নেতৃত্বে জোরপৃর্বক সম্পত্তি দখলের চেষ্টা

প্রকাশ:  ২০ আগস্ট ২০২৩, ০৯:১৯
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

 চাঁদপুর সদর উপজেলার ৪নং শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের শাহতলী গ্রামে আদালতে মামলা (নং ৪৩১/২১) বিচারাধীন থাকাবস্থায় স্থানীয় ৪নং ওয়ার্ডের ইউপি মেম্বার বিল্লাল হোসেন খানের নেতৃত্বে গত ২ আগস্ট সন্ত্রাসী কায়দায় অবৈধভাবে জোরপূর্বক জমি দখলের চেষ্টা ও হুমকির অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় গত ১০ আগস্ট ৪নং ওয়ার্ড মেম্বার (শাহতলীর) মোঃ বিল্লাল হোসেন খান গংকে আসামী করে চাঁদপুর সদর মডেল থানায় জিডি করা হয়েছে। জিডি নং-৭১১, তারিখ ১০/০৮/২০২৩ খ্রিঃ।
বড় শাহতলী গ্রামের জমির মালিক পক্ষ কাউসার হামিদ লিটন (৫১), পিতা মৃত ছাত্তার মিজি, মাতা জাহানারা বেগম বাদী হয়ে চাঁদপুর সদর মডেল থানায় এ জিডি করেন।
জিডির বিবাদীরা হলেন মাহবুব আলম বদু খান (৬০), প্রবাসী জাকির হোসেন খান (৫৮), বিল্লাল হোসেন খান (৪৮), সর্ব পিতা মৃত তাজুল ইসলাম খান, সর্ব সাং-বড় শাহতলী, ওয়ার্ড নং-৪, ৪নং শাহমাহামুদপুর ইউনিয়ন, উপজেলা- চাঁদপুর, জেলা-চাঁদপুর।
এ ব্যাপারে জিডির তদন্তকারী কর্মকর্তা থানার এসআই নয়ন আশ্চার্য্য বলেন, সরজমিনে তদন্তকালে সাক্ষী প্রমাণের ভিত্তিতে অভিযোগের সত্যতা পেয়েছি। বাদীর অভিযোগ সঠিক। আসামীদের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীট (প্রসিকিউশন) প্রদান করা হবে।
এ ব্যাপারে বড় শাহতলী গ্রামের জমির মালিক পক্ষ কাউসার হামিদ লিটন (৫১), পিতা মৃত ছাত্তার মিজি  সাংবাদিকদের জানান, শাহতলী গ্রামে আদালতে মামলা বিচারাধীন থাকাবস্থায় স্থানীয় ইউপি মেম্বার বিল্লাল হোসেন খানের নেতৃত্বে সন্ত্রাসী কায়দায় অবৈধভাবে জোরপূর্বক জমি দখলের চেষ্টা করে ও আমাদের হুমকি প্রদান করে। ঘটনার সাথে সাথে থানায় সাধারণ ডায়েরি করি। এ ঘটনায় তার বড় ভাই ফখরুল ইসলাম খানও জড়িত। তিনি আদালতে থাকাকালীন তার নির্দেশে জমি দখলের চেষ্টা করে তার ভাইয়েরা। আমরা আদালতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। আদালত জায়গার ব্যাপারে যে সিদ্ধান্ত দিবে তা আমরা মেনে নেবো।
এ ব্যাপারে শাহতলীর স্থানীয় ইউপি মেম্বার বিল্লাল হোসেন খান সাংবাদিকদের জানান, উক্ত ভূমির মালিক আমরা। এ নিয়ে পত্রিকায় রিপোর্ট দিলে কিছু যায় আসে না। সাংবাদিকরা যার মনে চায় লেখুক। কিছুই হবে না। আদালতে মামলা বিচারাধীন থাকাবস্থায় জায়গা দখলের চেষ্টার বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি এ বিষয়ে কিছু বলতে অস্বীকৃতি জানান।
গত ২ আগস্ট সকাল সাড়ে ১০টায় চাঁদপুর সদর মডেল থানাধীন বড় শাহতলী স্টেশন সংলগ্ন বাদীর মালিকানা সম্পত্তি জোরপূর্বক দখলের চেষ্টার ঘটনা ঘটে।
তফসিল ভুক্ত সম্পত্তি : ৪১ নং বড় শাহতলী মৌজার সিএস ১৯নং, এসএ ১৪নং খতিয়ান, হাল জরিপ ১২নং ও ৫০১নং খতিয়ানভুক্ত সাবেক ৫৩২ দাগ হাল ১৩৪২ দাগে নাল ১আনা ১৫ শতকের অন্দরে ১৩ শতাংশ সম্পত্তি, সাবেক ৫৩২ দাগ হাল ১৩৪২ দাগে নাল ১ আনা ২৬ শতকের অন্দরে ১৬ শতাংশ সম্পত্তি, সাবেক ৫৩১ দাগ হাল ১৩৩০ দাগের অন্দরে বাড়ী মো: ০১ শতক একুনে মো: ৩০ শতাংশ সম্পত্তি।
জিডিতে উল্লেখ করা হয়, নিম্ন তফসিলভুক্ত সম্পত্তি আমি ও আমার বোন রওশন আরা বেগম এবং হোসনে আরা বেগম  তফসিলভুক্ত সম্পত্তি ওয়ারিশ সূত্রে মালিক হয়ে বর্তমানে ভোগ দখলে আছি। বিবাদীরা আমাদের একই এলাকার বাসিন্দা। বিবাদীরা অত্যাচারী, উশৃঙ্খল, লাঠিয়াল, জুলুমবাজ, পরসম্পদ লোভী, এলাকার খারাপ প্রকৃতির লোক। বিবাদীরা জোরপূর্বক আমাদের মালিকানা উক্ত সম্পত্তি ভোগ দখল করার পাঁয়তারা করে আসছে এবং কথায় কথায় লাঠিসোটা নিয়া আমাকেসহ আমার পরিবারের সদস্যদের মারধর করার জন্য এসে বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদান করে থাকে।
আমি বিষয়টি স্থানীয় গণ্যমান্য লোকজনকে জানালে তারা সালিস দরবারের মাধ্যমে বিবাদীদেরকে সতর্ক করে দিলেও বিবাদীরা কারো কথার কোন প্রকার কর্ণপাত করে না। তাই নিরূপায় হয়ে বিবাদীদের বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালতে মামলা নং-৪৩১/২১ দায়ের করি। যা বর্তমানে বিজ্ঞ আদালতে বিচারাধীন আছে।
জিডিতে আরো উল্লেখ করা হয়, ঘটনার তারিখ ও সময়ে বিবাদীরা আমার অনুপস্থিতিতে আমাদের মালিকানা উক্ত সম্পত্তিতে টিন, কাঠ ও ফিলার দিয়া বেড়া দিয়ে দখলের চেষ্টা করে। সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে আসলে বিবাদীদের দখলের কাজে বাধা প্রদান করলে বিবাদীরা আমার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে অশ্লীল ভাষায় গালমন্দ করিয়া লাঠিসোটা নিয়া মারধর করতে উদীত হয়। আমার ডাক-চিৎকারে সাক্ষীরা এসে বিবাদীদের কবল হতে আমাকে রক্ষা করে। বিবাদীরা এই সময় বলাবলি করে যে, আমি বিবাদীদের দখলের কাজে কোন প্রকার বাধা প্রদান করলে বিবাদীরা আমাকেসহ আমার পরিবারের সদস্যদেরকে খুন জখম করে লাশ গুম করবে বলে হুমকি প্রদান করে।

সর্বাধিক পঠিত