• পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
  • শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১
  • ||
  • আর্কাইভ

১১ জুন চাঁদপুরকে গৃহহীনমুক্ত ঘোষণা করবেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশ:  ১১ জুন ২০২৪, ০৯:০৯
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

১১ জুন সোমবার চাঁদপুর জেলাকে ভূমি ও গৃহহীনমুক্ত ঘোষণা করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বরাদ্দকৃত ঘর ও জমির মালিকানা সংক্রান্ত কাগজপত্র ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উপকারভোগীদের মাঝে হস্তান্তর করবেন। প্রধানমন্ত্রীর এ ঘোষণার মধ্য দিয়ে চাঁদপুর জেলা ভূমি ও গৃহহীনমুক্ত জেলায় পরিণত হবে। গত ৯ জুন রোববার বিকেলে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে স্থানীয় সাংবাদিকদের সঙ্গে এ বিষয়ে প্রেস ব্রিফিং করেন চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান।
এ সময় তিনি জানান, সর্বশেষ হালনাগাদকৃত তালিকা অনুযায়ী চাঁদপুর জেলায় ‘ক’ শ্রেণির ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের সংখ্যা ১২৯০টি। ১ম পর্যায়ে একক গৃহের মাধ্যমে ১৩৫টি, ২য় পর্যায়ে ১০৯টি, ৩য় পর্যায়ে ১২৩টি এবং ৪র্থ পর্যায়ে ২১১টি অর্থাৎ চারটি পর্যায়ে সর্বমোট ৫৭৮টি পরিবারকে পুনর্বাসন করা হয়েছে।
এছাড়াও অন্যান্য পুনর্বাসনের আওতায় (ব্যারাক, গুচ্ছগ্রাম, খাস জমি বন্দোবস্ত) আরো ৭১২টি পরিবারকে ইতোমধ্যে পুনর্বাসন করা হয়েছে। এ সকল পরিবারকে এক টাকা সেলামীতে দুই শতক জমি বন্দোবস্ত প্রদান করা হয়েছে। উক্ত ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের কবুলিয়ত রেজিস্ট্রেশন, নামজারি ও জমাখারিজ খতিয়ান সৃজন, সনদপত্র প্রদানসহ সকল কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে। সরকার কর্তৃক কবুলিয়ত দলিলের জন্যে পরিবার প্রতি ২৫৮/- টাকা, নামজারি ও খতিয়ান প্রদান বাবদ ১১৭০/- টাকা প্রদান করা হয়েছে। এতে নামজারি, জমি রেজিস্ট্রেশন ও আনুষঙ্গিক খরচ বাবদ তাদের কোনো টাকা ব্যয় করতে হয় না। প্রতিটি একক গৃহের আয়তন ৪০০ বর্গফুট। দুই কক্ষ বিশিষ্ট সেমিপাকা গৃহে একটি টয়লেট, একটি রান্নার কক্ষ ও একটি ইউটিলিটি স্পেস রয়েছে।
জেলা প্রশাসক তাঁর লিখিত বক্তব্যে আরো বলেন, মুজিববর্ষে ‘বাংলাদেশের একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না’ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর এ নির্দেশনা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে দেশের সকল ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের জমি ও গৃহ প্রদান কার্যক্রম চলমান রয়েছে। মুজিববর্ষ উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান কার্যক্রমের ৫ম পর্যায়ের (২য় ধাপ) শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠান উপলক্ষে চাঁদপুর জেলার ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দের সাথে প্রেস ব্রিফিং ও মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়েছে।
সর্বশেষ হালনাগাদকৃত তালিকা অনুযায়ী চাঁদপুর জেলার মোট ১২৯০টি ভূমিহীন-গৃহহীন পরিবারের মধ্যে সকলকে পুনর্বাসন করায় আপাতত চাঁদপুর জেলায় কোনো ভূমিহীন নেই। ইতোমধ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক মতলব উত্তর, ফরিদগঞ্জ, শাহরাস্তি, মতলব দক্ষিণ, কচুয়া ও হাজীগঞ্জ উপজেলাকে ভূমিহীন-গৃহহীন মুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে। আজ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী চাঁদপুর সদর ও হাইমচর উপজেলাকে ভূমিহীন-গৃহহীনমুক্ত ঘোষণা করবেন।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) ইমরান শাহারীয়ার, আরডিসি মোঃ হেদায়েত উল্যাহ, চাঁদপুর প্রেসক্লাব সভাপতি শাহাদাত হোসেন শান্ত, সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান সুমনসহ প্রেসক্লাব কর্মকর্তা, সদস্যবৃন্দ এবং প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার প্রতিনিধিগণ।

 

সর্বাধিক পঠিত