• পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
  • বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১
  • ||
  • আর্কাইভ

রমজানের প্রথম জুমায় মসজিদে মুসল্লিদের ঢল

প্রকাশ:  ২৫ মার্চ ২০২৩, ১৩:৫০
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

২৪ মার্চ শুক্রবার ছিল পবিত্র রমজানের প্রথমদিন। আর এদিনটি মুসলিম উম্মাহর কাছে সপ্তাহে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ জুমার দিন। শুক্রবার জুমার আজান দেয়ার আগেই মুসল্লিরা ছুটতে থাকেন মসজিদের দিকে। জামাত শুরুর আগেই মসজিদগুলো কানায় কানায় ভরে যায়। চাঁদপুর শহরের ঐতিহাসিক পুরাণবাজার জামে মসজিদ, বাইতুল আমিন জামে মসজিদ, চাঁদপুর পৌর কবরস্থান সংলগ্ন মসজিদে গোর-এ গরিবা, বেগম জামে মসজিদসহ শহরের এবং উপজেলার প্রত্যেকটি মসজিদ কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায়। মসজিদের ভেতরে স্থান সঙ্কুলান না হওয়ায় নামাজের জামাত রাস্তায় অলি-গলিতে ছড়িয়ে পড়ে। মসজিদের ভেতরে জায়গা না পেয়ে মসজিদের ছাদ, খোলা জায়গা, খেলার মাঠ ও রাস্তায় দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় করেন মুসল্লিরা।
এবার প্রথম রোজা শুক্রবার হওয়ায় চাঁদপুরের প্রতিটি মসজিদে ধর্মপ্রাণ মুসল্লিদের ঢল নেমেছিলো। ধর্মপ্রাণ মুসলমানেরা এদিন নামাজের আগে থেকে বয়ান শুনতে মসজিদগুলোতে উপস্থিত হন। প্রতিটি মসজিদে রমজান মাসের মাহাত্ম্য, আমল ও গুরুত্ব নিয়ে বিশেষ বয়ান করা হয়।
জুমার নামাজ শেষে মোনাজাতে মহান আল্লাহর রহমত ও সাহায্য  কামনা করেন মুসল্লিরা। আল্লাহ যেন সকল ধর্মপ্রাণ মুসলমানের নেক হায়াত দান করেন এবং তারা যেন শেষ রোজা পর্যন্ত আল্লাহর হুকুম রোজা পালন করতে এবং রহমত বরকত মাগফেরাত ও নাজাত কামনা করে মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জন করতে পারেন সে সুযোগ যেন আল্লাহ দান করেন।
রমজানের প্রথম জুমায় চাঁদপুর জেলা শহরের ঐতিহাসিক পুরাণবাজার বড় মসজিদে ছিল মুসল্লিদের উপচেপড়া ভিড়। মসজিদে মুসল্লিদের ভিড়ে তিল ধারণের ঠাঁই ছিলো না। রমজানে আল্লাহর বিশেষ নেয়ামতের আশায় এখানে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন মসজিদের খতিব ও ইমাম মুফতি ইব্রাহিম খলিল।